দেশের চলমান পরিস্থিতিতে ময়মনসিংহ ইত্তেফাকুল উলামার আহবান

১১ এপ্রিল ২০২১, ১৬:৩৩
নিজস্ব প্রতিবেদক

দেশের চলমান অস্থিতিশীল ও উদ্বিগ্ন অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে সরকার ও জনসাধারণকে ধৈর্য ও সহনশীলতার সাথে পরিস্থিতি মোকাবেলায় কাজ করে যাওয়ার আহবান জানিয়েছে ইত্তেফাকুল উলামা বৃহত্তর মোমেনশাহী।

শনিবার (১০এপ্রিল) সকালে ময়মনসিংহ জামিয়া আরাবিয়া মাখযানুল উলূম মাদরাসায় ইত্তেফাকুল উলামা বৃহত্তর মোমেনশাহীর মজলিসে শূরার সভাপতি আল্লামা আবদুর রাহমান হাফেজ্জীর সভাপতিত্বে এক জরুরি বৈঠকে এই আহবান জানানো হয়।

বৈঠকে বলা হয়, কুরআন নাজিলের মাস রমযান সমাগত অথচ এই সময়ে কুরআন শিক্ষার কেন্দ্র কওমি মাদরাসাগুলো বন্ধ করার নানা ষড়যন্ত্র চলছে। বিগত আট মাস যাবত সারাদেশের কওমি মাদরাসাগুলো খোলা ছিল। এই দীর্ঘ সময়ে কোনো কওমি মাদরাসায় করোনা সংক্রমণের কোনো ঘটনা না ঘটলেও সম্প্রতি করোনার দোহাই দিয়ে কুরআন শিক্ষা বন্ধ করে দেয়ার পায়তারা চলছে। প্রতিষ্ঠানগুলোতে হামলা, মামলা, ধরপাকড়, হয়রানি ও ভয়-ভীতি প্রদর্শনের মাধ্যমে এক আতংকজনক পরিবেশ সৃষ্টি করা হয়েছে।

পবিত্র রমযানে কুরআন শিক্ষার অনন্য আয়োজন কওমি মাদরাসার নূরানী, নাযেরা, হিফয বিভাগসহ দ্বীনি কার্যক্রম পরিচালনার সকল বাধা অপসারণ করে ধর্মীয় দায়িত্বপালনের পথ নির্বিঘ্ন করতে সরকারের প্রতি আহবান জানানো হয়।

বৈঠকে আরো বলা হয়, আমরা গভীর উদ্বেগের সাথে লক্ষ্য করছি, এদেশের কওমি মাদরাসা, আলেম -উলামা ও ধর্মপরায়ণ জনগোষ্ঠীকে সরকারের প্রতিপক্ষ বানানোর গভীর ষড়যন্ত্রে মেতে উঠেছে একটি কুচক্রী মহল। উস্কানি দেয়া, গুজব ছড়ানো, ভুল ও মিথ্যা তথ্য পরিবেশনের মাধ্যমে অরাজকতা সৃষ্টির পায়তারা চালিয়ে যাচ্ছে স্বার্থান্বেষী মহলটি।

কুরআন হাদীসের কথা, হক কথা বলার কারণে আলেমদেরকে রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ ভাবা হচ্ছে। হামলা, মামলা দেয়া হচ্ছে, গ্রেফতার করা হচ্ছে। ভয়-ভীতি প্রদর্শন করা হচ্ছে। ইতোমধ্যে মাওলানা মামুনুল হক, পীর সাহেব মধুপুরসহ শীর্ষ আলেমদের বিরূদ্ধে একাধিক মিথ্যা মামলা করা হয়েছে।

মাওলানা রফিকুল ইসলাম মাদানীকে তার বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে।তাদের চরিত্রহননের জন্য মনগড়া নানা নাটক সাজানো হচ্ছে। আলেমদের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করতে হেন অপকর্ম নেই যা করা হচ্ছে না। আমরা এসকল অন্যায় আচরণের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। গ্রেফতারকৃত আলেমদের নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করছি। 

সরকারকে হঠকারী,অপরিণামদর্শী ও ধ্বংসাত্মক এই পথ থেকে ফিরে আসার আহবান জানাচ্ছি। 

দেশের এই ক্রান্তিকালে কুনুতে নাজেলার আমল ও সকল প্রকার আযাব-গজব থেকে মুক্তির দোয়া জারী রাখতে বৈঠক থেকে সকলের প্রতি আহবান জানানো হয়। 

বৈঠকে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, মাওলানা খালেদ সাইফুল্লাহ সাদী, মাওলানা আবুল কালাম আজাদ, মুফতি মুহিব্বুল্লাহ, মাওলানা মঞ্জুরুল হক, মুফতি মাহবুবুল্লাহ, মাওলানা মুহাম্মদ, মাওলানা জামাল উদ্দিন, মুফতি আমীর ইবনে আহমদ, মুফতি জাকির হুসাইন ও মুফতি শরীফুর রহমান প্রমুখ

মন্তব্য লিখুন :